‘আত্মগোপন’ করে কোথায় আছেন রাজীব কুমার? হন্যে সিবিআই

0
Advertisement

অগ্নিভ ভৌমিক, কলকাতা :- দিনের শেষেও বাড়ি ফিরলেন না কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমার। সিবিআইয়ের নির্দেশের সাড়া না দিয়ে সারাদিন ‘আত্মগোপন’ করেন তিনি। কিন্তু কোথায় আত্মগোপন করেছেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। এদিন শনিবার সকাল ১০টায় সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সের সিবিআই দফতরে তার হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল। দিন ফুরলেও তাকে পাওয়া গেল না দফতরে।
সিবিআইয়ের প্রতিনিধি দল তার সাথে বহুবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও, তাকে পাওয়া যায়নি। যোগাযোগ করা যায়নি তার নিরাপত্তা রক্ষীর সাথেও।
শনিবার বিকেলে সিবিআইয়ের প্রতিনিধি দল সিজিও কমপ্লেক্স থেকে নিজাম প্যালেসের উদ্দ্যেশে রওনা দেয়। ওই দলে ছিলেন সিবিআইয়ের তিন জন অফিসার এবং সিআইএসএফ-এর পাঁচ জন। নিজাম প্যালেসে তারা কিছুক্ষন সময় কাটান। তারপর প্রতিনিধি দল সেখান থেকে আইনি পরামর্শ নিতে যান আইনজিবী ওয়াই জি দস্তুরের বাড়িতে। দেড় ঘন্টা বৈঠক হয় পর, সিবিআইয়ের যুগ্ম অধিকর্তাকে, সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে এড়িয়ে যান। শুধু বলেন, “যা কাগজ মিলবে তা আমরা খতিয়ে দেখব। আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ নিয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করব। যা হবে দেখতে পাবেন।”
অবশ্য সকালে থেকেই তার আত্মগোপনের সম্ভাবনা সামনে আসছিল। কিন্তু তিনি কোথায় আত্মগোপন করেছেন? এটাই এখন সবচেয়ে বড়ো প্রশ্ন। পুলিশ অনুমান করছে, তিনি তার ৩৪ নম্বর পার্ক স্ট্রিটের আবাসনে থাকতে পারেন। যদিও তাকে আবাসন থেকে তাকে বাইরে বেড়তে দেখা যায়নি। সিবিআই সূত্রে খবর তিনি নাকি কলকাতাতেই আছেন। তবে কোথায় আছেন, আদৌ বাসভবনে আছেন কিনা – তা নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছেনা।
আইনজীবীদের একাংশ বলছেন, তিনি হাজিরা এড়িয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হতে পারেন। সে জন্য হয়তো তাঁর আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করছেন। তাঁদের মতে, সোমবার সুপ্রিম কোর্ট খুললেই আবেদন করবেন রাজীব।
ইতিমধ্যেই রাজীব কুমার নাকি মেল করে সিবিআইয়ের কাছ থেকে এক মাসের সময় চেয়েছেন। যদিও সিবিআইয়ের পক্ষ থেলে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, তাঁকে সময় দেওয়া হবে না।
শুক্রবার হাইকোর্টে তাঁর গ্রেফতারি সংক্রান্ত ‘রক্ষাকবজ’ উঠে যায়। ওই দিনই বিকেলে তাঁর ৩৪ নম্বর পার্ক স্ট্রিটের ঠিকানায় ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৬০ ধারায় সিবিআই তাঁকে নোটিস পাঠানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

7 + 5 =