আজয়ঘাট থেকে মুচিপাড়া রক্তের সড়কে জোর করে একাধিক জায়গায় তোলাবাজি, কাঁকসা পুলিশ কথা দিয়েও কথা রাখতে পারেনি বলে দাবি স্থানীয়দের

0
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, কাঁকসা :- একদিকে পুলিশের তোলাবাজি অপরদিকে মদ্যপ চালকের প্রচন্ড গতি।গত চলতি বছরে পুলিশের তোলাবাজির জেরে রক্তে রাঙা হয়ে আছে মলানদীঘি থেকে রূপগঞ্জের জঙ্গলের রাস্তা। রাত দিন চলে তোলাবাজি যার জেরে একাধিক সময় মৃত্যুর কবলে পড়তে হয়েছে সাধারণ মানুষ,ক্ষুদে পড়ুয়াদের। রামকৃষ্ণ বিদ্যাপিঠের ক্ষুদে পড়ুয়ারা যেদিন মৃত্যুর মুখে পড়েছিল,সেদিন কথা দিয়েছিল ক্ষুব্ধ জনতাকে এই রাস্তায় আর কোনোদিন তোলা আদায় করা হবে না।তার দু একদিন পর থেকে শুরু হয়েছে তোলাবাজি বলে দাবি স্থানীও মানুষদের। স্থানীয় মানুষরা জানান জনতার মার কেওড়াতলা পার, সুযোগ পেলে এই অবস্থায় হবে। মলানদীঘির বাসিন্দারা জানান ক্ষুদে পড়ুয়ারা যেদিন মৃত্যুর হাতে পড়েছিল সেদিন তোলপাড় হয়েছে গোটা শিল্পাঞ্চল দুর্গাপুর। ক্ষুব্ধ জনতার হাতে ধোলাই ও খেয়েছিলেন পুলিশ অফিসাররা। তার পর থেকে মলানদীঘি ক্যাম্প ও কাঁকসা থানা মিলে প্রায় চার জায়গায় জোর করে তোলা আদায় করে।লোরিচালকদের দাবি জোর করে একাধিক জায়গায় টাকা নেই,না দিলে ধাওয়া করে গাড়ি দার করিয়ে মারধর করে। কাঁকসার মানুষদের দাবি পুলিশের এই তোলা আদায় বন্ধ না হলে পরিণতি ভয়ঙ্কর হবে।তখন কিন্তু দায়ী থাকবে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × three =