সংবাদদাতা, দক্ষিণ দিনাজপুর:-লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজতেই রাজ্য জুড়ে সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মীরা নিজেদের প্রার্থীকে জেতাতে ভোট ময়দানে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। আগামী ১১ এপ্রিল রাজ্যে প্রথম দফার নির্বাচন। ঠিক একদিন আগে অর্থাৎ ১০ এপ্রিল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় বালুরঘাটে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।
বাংলাকে টার্গেট করে প্রথম থেকে পাখির চোখ করেছেন বিজেপি। এমনিতেই দেরি করে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে বিজেপি তারপর আবার নানান জায়গায় প্রার্থী নিয়ে ক্ষোভ। ভালোরকম বেকায়দায় পড়েছে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। বিজেপি সূত্রের খবর, চলতি মাসের ১০ তারিখে জেলার বালুরঘাটে মোদী-যোগী আসতে চলেছেন। ২৩ মে পশ্চিমবঙ্গ থেকে ২৩টি আসন নরেন্দ্র মোদীকে উপহার দেওয়ার কথা বলেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।
পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে পদ্ম ফোঁটানোর লক্ষ্যে মরিয়া বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। রণনীতি থেকে প্রচারকৌশল সবেতেই বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে বিজেপি। ২০১৮-র শেষভাগ থেকেই দফায় দফায় রাজ্যে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী সহ বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা। অন্যদিকে, জেলা জুড়ে নানান রাজনৈতিক দল থেকে বিজেপিতে যোগদান অব্যাহত। আগামী ১০ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর জেলা সফরকে ঘীরে বিজেপি কর্মী নেতাদের ব্যস্ততা এখন তুঙ্গে। অন্যদিকে, দিন রাত গলদঘর্ম হয়ে প্রচার করছেন জেলা বিজেপির নেতা-কর্মীরা। এবারের বালুরঘাট লোকসভা আসনের প্রার্থী সুকান্ত মজুমদারের প্রচারে কোন রকম খামতি রাখতে নারাজ জেলা বিজেপি নেতৃত্ব, তাই মোদীকে জেলা থেকে জয়ের আসন উপহার দিতে সদা ব্যস্ত বিজেপির কর্মী-নেতারা।