অলোক আচার্য, মধ্যমগ্রামঃ- লকডাউনের গেড়োয় এখন বাউল শিল্পীদের অসহায় দশা। মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া অনুদান মাসহারা ১০০০ টাকাই এখন তাদের একমাত্র সহায় সম্বল। যেখানে করোনা ভাইরাস মহামারীর কারনে আজ প্রায় সমস্ত বাউল গানের অনুষ্ঠান বন্ধ। যার জেরে এখন অতিরিক্ত আয়ের রাস্তায় ও বন্ধ শিল্পীদের। ফলে বাউল সমাজকে আজ অনাহার অর্ধাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে। যেখানে সমস্ত রাজ্যে রেশনটাও তারা আগের তুলনায় কম পাচ্ছেন এমনটাই তাদের অভিযোগ। তাই তাদের সামান্য কষ্টের লাঘবে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার প্রখ্যাত খ্যাতনামা বাউল শিল্পী গণেশ রায় ওরফে গণেশ বাউল অসহায় বাউল শিল্পীদের সাহায্যে হাত বাড়িয়ে দিলেন।

রবিবার সকালে মধ্যমগ্রাম বঙ্কিম পল্লী নিজ বাসভবনে জেলার কতিপয় অসহায় বাউল শিল্পীর হাতে চাল ডাল সহ নানাবিধ সামগ্রী তুলে দিলেন।যা হাতে পেয়ে যারপরনাই খুশি শিল্পীরা। তাদের প্রতি মুখ্যমন্ত্রী যাতে আর ও একটু বেশি নজর দেন সেই আবেদনই বারবার করলেন জেলার প্রত্যন্ত বাউল শিল্পীরা।

গণেশ বাউল জানান, কোভিড পরিস্থিতিতে রাজ্যের কড়া আত্মশাসনে জেলার প্রত্যন্ত অসহায় প্রায় ৩০ জন বাউল শিল্পী ও বাদ্যযন্ত্র বাদনদের পাশে দাঁড়িয়ে সাধ্যমতো চাল, ডাল, নানাবিধ সামগ্রী তুলে দিয়েছি নিজ বাসভবনে তাদের সঙ্গে কথা বলে যোগাযোগ করে। এটা পরম তৃপ্তি অনুভব করি। এই দুঃসময়ে তাদের মুখে কিছুটা হাসি ফোঁটাতে পেরেছি।