অলোক আচার্য, মধ্যমগ্রামঃ- করোনা অতিমারি আবহে ও রাজ্যের আত্মশাসনে লকডাউনে অসহায় বাউল শিল্পীরা। বন্ধ বিভিন্ন অনুষ্ঠান। বাউল শিল্পীরা গৃহবন্দী। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেওয়া ভাতা এক হাজার টাকা। শিল্পীরা চরম সংকটে। নেই পর্যাপ্ত অর্থ। জেলার বাউল শিল্পীদের মধ্যে অনেকেরই ঘরে রান্নার উপযুক্ত সামগ্রী ও নেই।

এই দুর্দিনে সঙ্কটকালে বাউল শিল্পীদের পাশে দাঁড়িয়ে সাধ্যমতো খাদ্যসামগ্রী বন্টন করল উত্তর ২৪ পরগণা জেলার মধ্যমগ্রামের আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বাউল গণেশ চন্দ্র রায় বাউল ।

রবিবার সকালে জেলার প্রত্যন্ত ১৫ জন বাউল শিল্পী দের হাতে নিজ উদ্যোগে চাল ডাল নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী তুলে দিলেন প্রথতিযশা বাউল শিল্পী গণেশ বাউল। বঙ্কিম পল্লী নিজ বাসভবনে। অসহায় শিল্পীরা এই সামগ্রী পেয়ে যার পর নেই বেজায় খুশি। গণেশ বাউলের এহেন মানবিকতা নজির দৃষ্টান্ত স্থাপন করল জেলার।

গণেশ বাউল জানান, এই কঠিন সময়ে বাউল শিল্পীদের মনের বেদনা অনুভব করে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে সামান্য প্রচেষ্টায় কিছুটা হলেও হাঁসি ফোঁটাতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করেছি। মানুষ মানুষের জন্য। জীবন জীবনের জন্য। একটু সহানুভূতি পেতে পারে না। পরম তৃপ্তি অনুভব করি দুঃসময়ে বাউল শিল্পীদের পাশে দাঁড়িয়ে । সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে সকলেই মাস্ক পরে হাত স্যানিটাইজার করে সামগ্রী গ্রহণ করেন ।