অলোক আচার্য, বারাসতঃ- ভারতের প্রথম উপরাষ্ট্রপতি ও দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি ডঃ সর্বপল্লী রাধা কৃষ্ণণের ১৩৩ তম জন্মদিন উপলক্ষে রবিবার সারা দেশ জুড়ে পালিত হয় শিক্ষক দিবস। এই বিশেষ দিনটিকে সামনে রেখে শিক্ষাবিদকে শ্রদ্ধা জানিয়ে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অর্ক দীপের সোপান ‘এর পক্ষ থেকে বারাসাত পুরসভার ২৮ নং ওয়ার্ডের সারদাপল্লী ও অশ্বিনী পল্লীর কিছু অংশে দারিদ্র্য সীমার নীচে পিছিয়ে পড়া ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে একটি আনন্দ ঘন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ৫ সেপ্টেম্বর রবিবার বিকেলে। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন মধুসূদন পাল। প্রধান অতিথি ছিলেন জয়দেব বিশ্বাস। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিতোষ হাওলাদার ও পল্টন কুমার রায়।

অর্ক দীপের সোপান এর পক্ষ থেকে সারদা পল্লীতে এই ছোট্ট কুঁড়িদের মধ্যে সকালে এই বিশেষ দিনদির বিষয়ে বসে আঁকো প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিলো। বিকেলে ছিল সর্ব সাধারণের কুইজ প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতায় সফল প্রতিযোগীদের আকর্ষণীয় পুরস্কার ও সুদৃশ্য ট্রফি তুলে দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে অর্ক দীপের সোপান এর বিশিষ্টজনেরা ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে শিক্ষা সর্বপল্লি রাধা কৃষ্ণণের অবদান নিয়ে মূল্যবান বক্তব্য তুলে ধরেন যা এই পিছিয়ে পরা ছাত্র ছাত্রীদের আগামীদিনের সুন্দর পথের দিশারি হবে।

এছাড়া এই সকল ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে কিছু ফল, পুষ্টিকর খাদ্য,শিক্ষণ সামগ্রী (খাতা,পেন, পেন্সিল রবার ও পেন্সিল বক্স) বিতরণ করা হয়।

সংগঠনের চেয়ারপারসন দীপ্তি রায় বলেন, এই কর্মযজ্ঞের মূল উদ্দেশ্য ছিল সর্বক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়া দুঃস্থ ছাত্র ছাত্রী দের প্রকৃত শিক্ষার আলোকে পৌঁছাতে উজ্জীবিত করা। এবং তাদের স্বাস্থ্যের প্রতি সামান্য যত্ন নেওয়া। তিনি আরো বলেন, এখন থেকে এই সকল পিছিয়ে পড়া ছাত্র-ছাত্রীদের বিনামূল্যে শিক্ষা প্রদান করবেন ও শিক্ষা বিষয়ক সহায়তা দেবেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রীতা বিশ্বাস, রত্না চক্রবর্তী , সুতপা নাথ, অরুন কুমার ঘোষ, বিপ্লব রায়,অর্পিতা সাহা, সৌমাল্য রায়।